নিজস্ব প্রতিনিধি, পশ্চিম মেদিনীপুর:
দীর্ঘদিন ধরে মেদিনীপুর শহরের উপকণ্ঠে রেল স্টেশন সংলগ্ন ওভার ব্রিজের নিচে বেশ কয়টি বেআইনি চোলাই ঠেক গজিয়ে উঠেছিল। দিনরাত এলাকায় মদ্যপদের উৎপাতে অতিষ্ঠ হতো শহরবাসী। বারংবার প্রশাসনের কাছে দরবার করেছিল এলাকাবাসী। এরপরেই উপযুক্ত ব্যাবস্থা নেয় প্রশাসন। জেলা পুলিশ এর উদ্যোগে আকস্মিক উচ্ছেদ অভিযান শুরু করে। বুলডোজার দিয়ে উল্লেখিত অবৈধ মদের দোকান গুলি ভেঙে ফেলা হয়।
এক এলাকাবাসী জানিয়েছেন, প্রতিনিয়ত এলাকায় মদ্যপদের ভিড় জমে যেত। প্রায়শ বচসা হট্টগোল লেগেই থাকতো। এলাকার যুব পুরুষরা চোলাইয়ে আসক্ত হয়ে তাঁদের জীবন দুর্বিসহ হয়ে উঠেছিল।এমনকি এই নেশা করেই সামনে রেল পারাপারের সময় রেলে কাটা পড়ে অনেকেরই অকাল মৃত্যু পর্যন্ত ঘটেছে।
রেল পুলিশ সূত্রে রীতিমতো ভয়ংকর তথ্য সামনে এসেছে,গত প্রায় ৬মাসে প্রায় ৬-৭ জন নেশাগ্রস্থ অবস্থায় রেল লাইন পারাপার করতে গিয়ে দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে। এমনকি গত দুদিন আগেও এক নেশাগ্রস্থ মুখ দিয়ে রক্তবমি করা অবস্থায় ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয়।
এরপরেই নড়েচড়ে বসে জেলা প্রশাসন।ওই এলাকায় অবৈধ তিনটি দোকান বুলডোজার নিয়ে সাফ করে দেয় এলাকা।
ঘটনায় এলাকায় মানুষ প্রশাসনের এই কড়া পদক্ষেপ এ খুশি বলে জানিয়েছেন। পাশাপশি জেলা প্রশাসনের তরফে আগামী দিনেও এলাকায় অবৈধ চোলাই ভাটি গুলির বিরুদ্ধে কড়া ব্যাবস্থা নেবেন বলে জানিয়েছেন।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *