নিজস্ব প্রতিনিধি, পশ্চিম মেদিনীপুর

পঞ্চম দফা নির্বাচনে উত্তপ্ত হল আরামবাগ। উত্তেজিত জনতাকে ছত্রভঙ্গ করতে লাঠিচার্ট করতে হলো কেন্দ্র বাহিনীকে।
সূত্রে খবর আরামবাগ লোকসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত চন্দ্রকোনা ২ নম্বর ব্লকের পিয়ারডাঙ্গা ১১৯ নম্বর বুথ এলাকায়।
তৃণমূলের তরফে অভিযোগ চন্দ্রকোনা বিধানসভার প্রাথমিক বিদ্যালয় ১১৯ নম্বর বুথে ভোট দিতে গেলেই নির্বাচনের কাজে যুক্ত কর্মীরা হাতে কালি দেওয়ার সময় বলে দিচ্ছেন কোন বোতাম টিপে ভোট দিতে হবে। পাশাপাশি কেন্দ্রীয় বাহিনীর কয়েকজন সদস্য ভোটারদের ভোটদান কক্ষে নিয়ে গিয়ে বিজেপির প্রার্থীকেই ভোট দেওয়ানোর জন্য তাদের চাপ দেয়। আর এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে রীতিমত উত্তেজনা ছড়ায় এলাকায়।
যদিও তৃণমূলের এই অভিযোগ মানতে নারাজ কেন্দ্র বাহিনীর জওয়ানরা।এমনকি পুরো ঘটনাটি অস্বীকার করেন ওই নির্বাচনী কেন্দ্রে দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রিজাইডিং অফিসার।
তাদের দাবি একই ব্যক্তি দুইবার ভোট দিতে আসে। তখনই তথ্য যাচাই করতে গেলে ধরা পড়ে যান এক ভুয়ো ভোটার। তারপরেই গণ্ডগোলের সৃষ্টি হয়। এরপর উত্তেজিত জনতাকে ছাত্রভঙ্গ করতে শেষমেষ লাঠিচার্জ পর্যন্ত করতে হয় কেন্দ্র বাহিনীর জওয়ানদের। তবে শেষ পুলিশ ও জওয়ানদের তৎপরতায় পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *