নিজস্ব প্রতিনিধি, পশ্চিম মেদিনীপুর

পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা শহরের নজরগঞ্জ এলাকার কাঁসাই নদীর তীরে রয়েছে বিমলা মাতার ঘাট।এই ঘাট যেমন বহু পুরনো,তেমনই এলাকাবাসীর একমাত্র ভরসা এই ঘাট। নিত্য প্রয়োজনে এই ঘাট ব্যবহার করেন এলাকার মানুষজন। ভক্তি ভরে পুজোও করেন এই ঘাট সংলগ্ন জাগ্রত বিমলা মাতার মন্দিরে।
সম্প্রতি সেই ঘাটের নাম পরিবর্তন করে বিমলা মাতা ঘাটের পরিবর্তে নামকরণ করা হয়েছে স্বামীজি ঘাট। আর সেই ঘাটের উদ্বোধনে আসেন বিধায়িকা জুন।মালিয়া সহ মেদিনীপুর পৌরসভার চেয়ারম্যান সৌমেন খান ও অন্যান্যরা। নির্ধারিত কর্মসূচি অনুযায়ী এদিন বিকেল নাগাদ তিনি এই ঘাট উদ্বোধন করেন।
এদিকে বিধায়িকা আসার পূর্বেই নজরগঞ্জ সহ ঘাট সংলগ্ন এলাকায় ধিক্কার পোস্টারে ছয়লাপ হয়ে যায়।বিমলা মাতার নামে ঘাট পরিবর্তনে তীব্র বিরোধিতা উল্লেখ করা হয় পোস্টারে।
যদিও শেষ পর্যন্ত নয়া নাম বহাল রেখেই ঘাট উদ্বোধন করেন বিধায়িকা জুন মালিয়া। পাশাপাশি এদিন বিধায়িকার সামনেই ধিক্কার ও ক্ষোভে ফেটে পড়েন ওই মন্দিরের সেবাইত থেকে এলাকার মানুষজন।
এ প্রসঙ্গে মন্দিরের সেবাইত যোগী বালক নাথ জী জানান, “দীর্ঘদিনের এই মন্দিরের নাম অনুসারে এই ঘাটের নাম বিমলা মাতার ঘাট শহর বাসি জানেন। রাতারাতি সেই নাম পরিবর্তন আমরা মানছি না, ঘাটের নাম বদলের কারণেই আমরা ধিক্কার ও তীব্র বিরোধিতা জানাচ্ছি।”
যদিও এ প্রসঙ্গে বিধায়িকা জুন জানান, যখন নাম পরিবর্তন করা হচ্ছিল তখন কেউ কেন কোনও অভিযোগ জানাননি, ঘটনাকে আমল না দিয়েই তিনি বেরিয়ে যান।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *