নিজস্ব প্রতিনিধি, পশ্চিম মেদিনীপুর:

পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার দাসপুর ব্লকের গোবিন্দনগরে বিজেপির একটি দলীয় কর্মসূচিতে এসেছিলেন অভিনেতা তথা রাজ্য যুব মোর্চার ইনচার্জ ও বিজেপি বিধায়ক হিরন চট্টোপাধ্যায়।এদিন তিনি লোকসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে এলাকায় একটি দেয়াল লেখেন।
এরপরই সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে তিনি একযোগে রাজ্য সরকার ও ঘাটালের সাংসদকে নিশানা করেন।
হিরন বলেন, “অভিনয় আর জনসেবা একসাথে কখনোই করা সম্ভব নয়, যে কোন একটাকে বেছে নেওয়াটা উচিত। এতদিন পর্যন্ত ঘাটালের মানুষ বিজেপি সাংসদকে পায়নি এবার যদি বিজেপি সাংসদ সুযোগ পায় তাহলে এক মাসের মধ্যে ঘাটাল রেল মানচিত্রে অন্তর্ভুক্ত হবেই।পাশাপশি তিনি আরও বলেন,”ঘাটাল লোকসভার দেড় কোটি মানুষ বাইরে রয়েছে, ঘাটালের সাংসদ বর্তমানে কিছুই ভাবেন না তাদের জন্য।দেবের নাম না করে তীব্র সুরে কটাক্ষ করেন খড়গপুরের বিধায়ক।”
তিনি বলেন,ঘাটালে বিজেপির সাংসদ হলে প্রথম কাজ হবে রেলস্টশন,গোল্ড হাব তৈরি করা, প্রধানমন্ত্রীর ১৬ শ কোটি টাকা, যেটা ঘাটাল মাস্টার প্ল্যান এর জন্য পড়ে আছে খরচা করতে পারেনি এখানকার সংসদ সেই টাকা বাড়িয়ে ঘাটাল মাস্টার প্লানের কাজ হবে এবং এক মাসের মধ্যে সেই কাজ হবে।”
এদিন তিনি ঘাটাল বাসীর উদ্দেশ্যে ঘাটাল কে সাজিয়ে তোলার একাধিক প্রতিশ্রুতি বার্তা দেন।
এদিকে লোকসভা ভোটকে কেন্দ্র করে ব্যাপক তৎপরতা শুরু হয়েছে বিজেপির অন্দরে। শীর্ষ নেতৃত্বের রুট মাফিক প্রচারপর্ব কে কাজে লাগাতে উঠে পড়ে লেগেছে গেরুয়া শিবির।এদিন ঘাটালে আগমন হয়ে বিজেপি বিধায়ক কি সেই লোকসভা নির্বাচনের প্রচারে দামামা বাজালেন ? চুলচেরা বিশ্লেষন শুরু করেছেন জেলার রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞ মহল।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *