সঙ্কেত ডেস্ক: প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগে বুধবার পর্ষদ প্রকাশিত প্যানেলে স্থগিতাদেশ দিল না কলকাতা হাইকোর্ট। বরং যে সমস্ত আবেদনকারীদের ডিএলএড যোগ্যতা থাকা সত্বেও তা প্রকাশ করেননি তাদের নিয়ে আলাদা প্যানেল প্রকাশের নির্দেশ দিলেন বিচারপতি রাজাশেখর মান্থা। শুক্রবার এই নির্দেশের পর প্রাথমিকে ৯,৫৩৩টি পদে নিয়োগে ফাঁড়া আপাতত কাটল।মামলাকারী ১২ জনের জন্য পৃথক মেধাতালিকা প্রকাশের নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। পরীক্ষার নম্বরের ভিত্তিতে দেখা হবে তাঁরা প্যানেলে সুযোগ পান কিনা।

২০২২ সালের প্রাথমিকে নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের সময় তাদের ডিএলএড ও BeD দুরকম যোগ্যতাই ছিল। কিন্তু ডিএলএড যোগ্যতার বদলে বিএড ডিগ্রির ভিত্তিতে আবেদন করেন তাঁরা। পরে সুপ্রিম কোর্ট জানায়, প্রাথমিক স্কুলে পড়াতে পারবেন শুধু মাত্র ডিএলএড প্রশিক্ষিতেরাই। ফলে বিএড প্রশিক্ষিতেরা বাদ চলে যান। মামলাকারীদের দাবি, বিএড ও ডিএলএড থাকা সত্ত্বেও নিয়োগ প্রক্রিয়ায় অংশ নেওয়ার সুযোগ দেয়নি পর্ষদ। বিএডে নম্বর বেশি থাকায় নিয়োগ প্রক্রিয়ার সময় বিএড ডিগ্রি দেখান মামলাকারীরা। বুধবার প্যানেল প্রকাশিত হলে দেখা যায় তাতে নাম নেই তাঁদের। এর ফলে যোগ্যতা থাকলেও তাঁরা চাকরি থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন বলে অভিযোগ করেন ওই চাকরিপ্রার্থীরা।

এমতাবস্থায় বিএডের পরিবর্তে ডিএলএড ডিগ্রি দেখাতে আবেদন করেন তাঁরা। প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ তা মানতে না চাওয়ায় হাই কোর্টের দ্বারস্থ মামলাকারীরা। সেই মামলার পরিপ্রেক্ষিতেই নতুন মেধাতালিকা প্রকাশের নির্দেশ বিচারপতির। আদালতের পর্যবেক্ষণ, “প্রাথমিক পর্ষদকে নিয়োগে অনেক বাধা পেরতে হচ্ছে। তবুও একজন নাগরিককে সরকারি পরীক্ষার সুযোগ থেকে বঞ্চিত করা যায় না।” বিচারপতি বলেন, “মামলাকারীরা পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হওয়ার পর পর্ষদ তাঁদের নাম বাদ দিয়েছে। এই সিদ্ধান্ত অত্যন্ত রূঢ়।”

কলকাতা হাই কোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ ২০২২ সালের প্রাথমিকের নিয়োগ প্রক্রিয়ার উপর স্থগিতাদেশ দিয়েছিল। সেই স্থগিতাদেশ তুলে নেয় সুপ্রিম কোর্ট। প্রায় ১২ হাজার প্রার্থীর মেধাতালিকা প্রকাশের নির্দেশ দেয়। সেই মতো ১১ হাজার ৭৫৮টি শূন্যপদের মধ্যে ৯ হাজার ৫৩৩ পদে শিক্ষক নিয়োগের জন্য বুধবার প্রার্থীদের প্যানেল প্রকাশ করে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ। তার পরেই কলকাতা হাই কোর্টের দ্বারস্থ হন ওই ১২ জন প্রার্থী। সেই মামলার শুনানিতেই বিচারপতি জানালেন, ১২ জনের জন্য আলাদা মেধাতালিকা প্রকাশ করতে হবে। তবে মূল তালিকাকে স্পর্শ করা যাবে না।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *