সঙ্কেত ডেস্ক: লোকসভা নির্বাচন যত এগিয়ে আসছে ততই পারদ চড়ছে বহরমপুরে। বলা ভালো অধীর বনাম তৃণমূলের সংঘাত যেন প্রকট হচ্ছে।রাজ্য-রাজনীতিতে মমতা-অধীর বিবাদ সকলের জানা। জাতীয় স্তরে বিজেপির বিরুদ্ধে বিরোধী জোট ‘ইন্ডিয়া’ তৈরি হয়েছে ঠিকই। বঙ্গে তার কোনও প্রভাব পড়েনি। কারণ ২০২৪-এর লোকসভা ভোটে বহরমপুর দখলে এবার সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পাঠিয়েছেন প্রাক্তন ক্রিকেটার ইউসুফ পাঠানকে। তবে এতেও যে পাঁচ বারের সাংসদ অধীর চৌধুরী দমানো যাবে না সে কথা সদর্পে নিজেই জানালেন তিনি।এবার নিজের লোকসভা কেন্দ্রে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী ইউসুফ পাঠানকে নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন অধীর। বললেন, ‘বহরমপুরে তৃণমূল জিতলে রাজনীতি ছেড়ে দেব।’

অধীর রঞ্জন চৌধুরী সংবাদ মাধ্যমের সামনে বলেন, ‘আমার দু’টো কথা। বহরমপুর লোকসভা আসনে তৃণমূল হেরে গেলে সেই হার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজের পরাজয় বলে মেনে নেবেন কি? হ্যাঁ বা না-তে বলুন। আর দুই, বহরমপুরে যদি তৃণমূল জিতে যায়, তাহলে রাজনীতি থেকেই অবসর নিয়ে নেব।’


প্রসঙ্গত, একসময় বামফ্রন্টের বিরুদ্ধে দাপটের সঙ্গে রাজনীতি করেছেন অধীর চৌধুরী। ১৯৯৯ থেকে টানা বহরমপুরের সাংসদ অধীর চৌধুরী। এ বছরও অধীর চৌধুরী নিজের খাসতালুক থেকেই লড়াই করছেন।২০১১ সালের পর রাজ্যের চিত্রটা বদল হয়েছে।তবে তৃণমূলের রাজত্বকালেও তিনি একই রকম একরোখা।অন্যদিকে, ২০২৪ এ অধীরকে হারাতে মরিয়া ঘাসফুল শিবির।অধীর গড়ে সংখ্যালঘু ভোট টানতে মরিয়া তারা। অপরদিকে বিজেপির টিকিটে লড়ছেন নির্মল সাহা। অনেকেই মনে করছেন সংখ্যালঘু ভোট যদি কাটাকাটি হয় তাহলে সুবিধা পেতে পারেন নির্মলই।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *