নিজস্ব প্রতিনিধি: লোকসভা ভোটের প্রচার শুরু বাংলা থেকেই। দু’দিনের সফরে পশ্চিমবঙ্গে এসেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি । শুক্রবার আরামবাগে এসেই দুপুর ৩টের সময় তিনি সেই কর্মসূচির মঞ্চে যান। সেখানে এলপিজি গ্যাস সিলিন্ডারে ভরার প্রকল্প থেকে কলকাতার শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় বন্দরের আধুনিকীকরণের প্রকল্পের সূচনা করেন প্রধানমন্ত্রী। রাজ্যের তিনটি রেল প্রকল্পেরও সূচনা করেন তিনি। আরামবাগে মোদী সাত হাজার কোটির বেশি মূল্যের প্রকল্পের উদ্বোধন এবং শিলান্যাস করেন।

সরকারি প্রকল্প উদ্বোধনের পর প্রধানমন্ত্রী বলেন,সারা দেশের মতো বাংলায় রেলের উন্নয়ন হওয়া দরকার, একই সঙ্গে তিনি বলেন,”বিকশিত ভারত গড়ার যে পরিকল্পনা রয়েছে তাতে গরিব, মহিলা এবং যুবদের সবচেয়ে বড় ভূমিকা থাকবে। দেশের ২৫ কোটি মানুষ দারিদ্র সীমার উপরে উঠেছে। পশ্চিমবঙ্গের বিকাশের জন্য সাত হাজার কোটি টাকার প্রকল্পের উদ্বোধন ও শিলান্যাস হয়েছে। এর ফলে রেল, পেট্রল এবং জলশক্তির উন্নতি হবে।”পশ্চিম মেদিনীপুরে এলপিজি বটলিং প্ল্যান্ট চালু হলে কর্মসংস্থান হবে বলেও দাবি করেন মোদী। জানান, হাওড়া, হুগলি, কামারহাটি, বরানগর এলাকার যুবকদের জন্য কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি হবে কেন্দ্রের উদ্যোগে হতে চলা বিভিন্ন প্রকল্পের মাধ্যমে।
রেলের উন্নয়ন সম্পর্কে মোদী বলেন,”বিভিন্ন ক্ষেত্রে বরাদ্দ অতীতের তুলনায় তিন গুণ বেড়েছে। বাংলায় ১০০ স্টেশনকে নতুন করে সাজানো হচ্ছে।” পশ্চিমবঙ্গ পাঁচটি বন্দেভারত এক্সপ্রেস পেয়েছে বলেও উল্লেখ করেন মোদী। বলেন,”পশ্চিমবঙ্গের মানুষের সহযোগিতায় বিকশিত ভারত গড়ার লক্ষ্য পূর্ণ হবে।”

এদিন মোদীর সঙ্গে একই মঞ্চে হাজির ছিলেন রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোস, কেন্দ্রীয় জাহাজ প্রতিমন্ত্রী শান্তনু ঠাকুর, বিজেপি সাংসদ তথা রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার, বিষ্ণুপুরের সাংসদ সৌমিত্র খাঁ এবং রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী সহ আরও অনেকে।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *