নিজস্ব প্রতিনিধি: বাংলার ব্যাডমিন্টন প্রেমী মানুষদের জন্য বছরের শুরুতেই থাকছে একটি দারুণ সুখবর । মাননীয় ক্রীড়ামন্ত্রী শ্রী অরূপ বিশ্বাস মহাশয়ের উৎসাহ ও প্রত্যক্ষ সহযোগিতায় “বেঙ্গল ব্যাডমিন্টন লাভারর্স অ্যাকাডেমির” উদ্যোগে শুরু হতে চলেছে এক অভাবনীয় কর্মযজ্ঞ । উক্ত সংগঠনের চেয়ারম্যান স্বয়ং ক্রীড়ামন্ত্রী এবং আহবায়ক বিশিষ্ট সমাজসেবী শ্রী চন্দ্রচূড় গোস্বামীর যৌথ উদ্যোগে 2024 সালের 12ই জানুয়ারী স্বামী বিবেকানন্দের জন্মদিন তথা জাতীয় যুব দিবসে মূলত দরিদ্র প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর প্রতিনিধি, সরকারী ও বেসরকারী চাকুরে ক্রীড়াপ্রেমী মানুষ, স্কুল কলেজের ছাত্র ছাত্রী সহ সমস্ত ব্যাডমিন্টন প্রেমী মানুষ যারা মূলত শীতকালে আউটডোর ব্যাডমিন্টন খেলেন তাদের মধ্যে থেকে প্রতিভা অন্বেষণ করে ব্যাডমিন্টনের মূল স্রোতে যুক্ত করাই এই সংগঠনের মূল উদ্দেশ্য । 12ই জানুয়ারী শুরু হয়ে কলকাতা ও বাংলার প্রায় প্রতিটি জেলা থেকে যত বেশী সম্ভব ক্লাব ও খেলোয়াড়দের সাথে যোগাযোগ করে তারা যেখানে আউটডোর খেলেন সেখানেই আয়োজন করা হবে প্রতিভা অন্বেষণের প্রতিযোগিতা । প্রায় এক মাস ধরে চলবে এই অভিনব কর্মসূচী। তারপর তাদের কলকাতায় কোনো ভালো ইনডোর কোর্ট বা ক্লাবে এনে দুই দিন ব্যাপী একটি প্রতিযোগিতা ও প্রশিক্ষণ শিবির আয়োজন করার পরিকল্পনা আছে আয়োজকদের। ক্রীড়ামন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের অনুপ্রেরণা ও সমাজসেবী চন্দ্রচূড় গোস্বামীর তদারকিতে বাস্তবায়িত হবে সম্পূর্ণ কর্মকাণ্ডটি। ইনডোরে ফাইনালের দিন সংস্থার চেয়ারম্যান স্বয়ং ক্রীড়ামন্ত্রী উপস্থিত থেকে প্রতিভাবান খেলোয়াড়দের পুরস্কৃত করার সম্ভাবনা রয়েছে । পুরো কর্মযজ্ঞটি বাস্তবায়িত করার জন্য আগ্রহী ক্রীড়াপ্রেমী জনপ্রতিনিধি, সমস্ত ক্লাব এবং সমাজের প্রতিটি স্তরের ক্রীড়াপ্রেমী মানুষদের খেলোয়াড়, সংগঠক অথবা শুভাকাঙ্ক্ষী হিসেবে উপস্থিত থাকার জন্য আহবান জানিয়েছেন সংস্থার আহবায়ক শ্রী চন্দ্রচূড় গোস্বামী। চন্দ্রচূড় বাবুর কোথায় “জাতি, ধর্ম, বর্ণ ও রাজনীতির ঊর্ধ্বে উঠে ক্রীড়া প্রতিভাদের বিশ্ববিজয়ী খেলোয়াড়ে রূপান্তরিত করাই আমাদের মূল লক্ষ্য । হতেও পারে আমাদের প্রয়াসের ফলে এমন অনেক না খুঁজে পাওয়া হীরক খুঁজে পাওয়া যাবে যাদের দ্যুতি আগামীদিনে বাংলা তথা সারা ভারতবর্ষের মুখ গৌরবোজ্জ্বল করবে । কে বলতে আমাদের মাধ্যমেই হয়তো আগামী দিনে ভারতবর্ষ আরো অনেক পুলেল্লা গোপীচাঁদ, পি ভি সিন্ধু বা সাইনা নেহেওয়ালদের পেতে চলেছে ।” ক্রীড়ামন্ত্রী শ্রী অরূপ বিশ্বাস এবং সমাজসেবী চন্দ্রচূড় গোস্বামীর ঐকান্তিক প্রয়াসে গঠিত “বেঙ্গল ব্যাডমিন্টন লাভারর্স অ্যাকাডেমি” আগামীদিনে ব্যাডমিন্টন খেলাকে সারা বাংলায় যে আরো বহু গুণ জনপ্রিয় করে তুলবে সেই ব্যাপারে কোন সন্দেহ নেই ।

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *