নিজস্ব সংবাদদাতা, সন্দেশখালি:

সন্দেশখালির উত্তপ্ত পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে গতকালই এলাকা পরিদর্শনে যান রাজ্য পুলিশের ডিজি রাজীব কুমার। বৃহস্পতিবারও সন্দেশখালির একাধিক এলাকাতে টহল দেন তিনি। এরপর সকালে ধামাখালীর লঞ্চ ঘাটের উদ্দেশে তিনি রওনা দেন। এরপর সকাল ৯টা নাগাদ তিনি কলকাতার পথে ফিরে আসেন। সন্দেশখালি প্রসঙ্গে রাজীব কুমার বলেন, “আমি বাহিনীর সঙ্গে কথা বলেছি। আমাদের দিক থেকে যা যা পদক্ষেপ করার আমি করব। যা যা সমস্যা রয়েছে তা শোনার এবং সেগুলির সমাধান করার চেষ্টা করব। কারও কোনও সমস্যা বা অভিযোগ থাকলে আমরা আছি সমাধান করার জন্য।” সাধারণ মানুষকে বার্তা দিয়ে তিনি বলেন, “আমাদের সঙ্গে যেন মানুষ সহযোগিতা করেন। নিজের হাতে আইন কেউ যেন তুলে না নেয়।”

উল্লেখ্য, জনরোষের আগুনে সকাল থেকেই অগ্নিগর্ভ হয়ে উঠে সন্দেশখালি বিধানসভার বিভিন্ন অঞ্চল। শেখ শাহজাহানের জন্য ইডি আধিকারিকদের ওপর চড়াও হয়ে গ্রাম ছাড়া করেছিল উত্তেজিত জনতা। বিগত কয়েকদিন সেই শাহজাহানের গ্রেফতারির দাবিতে সাধারণ মানুষের ক্ষোভের ভয়াল রূপ দেখে রাজ্যবাসী। শাহজাহান কবে গ্রেফতার হবেন? সাংবাদিকদের প্রত্তুতরে ডিজি বলেন, “যারা যারা আইন ভেঙেছেন তাঁদের প্রত্যেককে গ্রেফতার করা হবে।”

উল্লেখযোগ্যভাবে, শিবপ্রসাদ হাজরা এবং উত্তম সর্দারকে গ্রেফতার করা হলেও এখনও অধরা শেখ শাহজাহান। এই বিষয়ে নির্দিষ্ট করে কিছু বলেননি রাজীব কুমার। তবে তিনি বলেন, ‘যারা আইন হাতে তুলে নিয়েছে তাদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা করা হবে। স্থানীয়রা যা অভিযোগ করছেন সেগুলি শোনা হচ্ছে এবং খতিয়ে দেখা হচ্ছে। সকলকে পুলিশের সহায়তা করতে হবে। যাঁরা আইন ভাঙবে তাদের বিরুদ্ধে সমস্ত ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *