সঙ্কেত ডেস্ক: রেড রোডের ধরনা মঞ্চে মনরেগা নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বড় ঘোষণা। একশো দিনের কাজের শ্রমিকদের প্রাপ্য পাওনা মেটাবে রাজ্য, ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রী মমতার৷ ১০০ দিনের কাজে কেন্দ্র সরকার টাকা না দিলে, আগামী ২১ ফেব্রুয়ারির মধ্যে মহাত্মা গান্ধী জাতীয় গ্রামীণ কর্মসংস্থান গ্যারান্টি অ্যাক্ট (MGNREGA-স্কিমে) মোট ২১ লক্ষ বঞ্চিতকে টাকা দেবে মমতা সরকার। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘২১ ফেব্রুয়ারি ১০০ দিনের কাজের ২১ লক্ষ বঞ্চিত শ্রমিকের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে টাকা দেবে রাজ্য সরকার।’ যাঁরা টাকা পাননি, তাঁদেরও পরে টাকা দেওয়া হবে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী।

রেড রোডের ধরনা মঞ্চ থেকে মমতা বলেন, ” ২৫ মাস ধরে টাকা আটকে রেখেছে কেন্দ্র। গত দু’বছরে আমাদের একটা টাকাও দেয়নি ওরা। কেন্দ্রীয় সরকার ভাবছে ভাতে মারবে। অথচ আমরা ১৯ লক্ষ শ্রম দিবস তৈরি করেছি৷ আপনারা আমার কাছে কি আশা করেন? লড়াই? লড়াই তো চলছে। আগামী ২১ ফ্রেব্রুয়ারি রাজ্য সরকার তাদের অ্যাকাউন্টে টাকা দেবে। ব্যাঙ্কে সরাসরি চলে যাবে। এটা আমাদের প্রথম পদক্ষেপ৷ আবাসনেরটা পরে বলব। আমরা ভিক্ষা চাই না।”
এই বিপুল টাকা আসবে কোথা থেকে? মুখ্যমন্ত্রী সে জবাবও দেন এদিন মঞ্চ থেকেই। জানান, এটা মানুষের টাকা, মাটির টাকা। এদিন মুখ্যমন্ত্রী বলেন, তিন বছর ধরে ১০০ দিনের শ্রমিকদের টাকা দেয়নি কেন্দ্র। সেই হকের টাকা দেবে বাংলার সরকার, জানিয়ে দেন মমতা।
যদিও এই মমতার এই ঘোষণা নিয়ে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজাও।প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরীর বলেন, “এটা ভোটের আগে একটা ঢপের কীর্তন হবে। বলবেন, দেখুন ১০০ দিনের কাজে আমি কত বড় আন্দোলন করছি।’
বিজেপি সাংসদ দিলীপ ঘোষের বক্তব্য, “ক্যাগ বলেছে ২ লক্ষ ২৯ হাজার কোটি টাকা কেন্দ্রের থেকে এসেছে বিভিন্ন সময়ে। তার কোনও হিসাব রাজ্য দেয়নি। এমার্জেন্সি ফান্ডেরও কয়েক হাজার কোটি টাকার হিসাব নেই। আর ওনার কাছে যদি টাকা ছিল তা আগেই দিয়ে দিতে পারতেন।”

By admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *